রবিবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / রাজ্যসভায় সাসপেন্ড তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন

রাজ্যসভায় সাসপেন্ড তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন

আগামী ১৩ আগস্ট পর্যন্ত বাদল অধিবেশন চলবে। ততদিন পর্যন্ত সাসপেন্ড থাকবেন তৃণমূল কংগ্রেসে সাংসদ শান্তনু সেন।

মিঠুলাল চৌধুরী

শুক্রবার তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেনের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করলেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নাইডু। গোটা বাদল অধিবেশনের জন্য তাঁকে তিনি সাসপেন্ড করলেন। ভেঙ্কাইয়া নাইডু অগণতান্ত্রিক ও অসংসদীয় আচরণের জন্য শান্তনুকে সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন । এই ঘটনায় কেন্দ্রীয় সরকারকে তীব্র আক্রমণ করেছেন শান্তনু। তিনি বলেন, এভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূল কংগ্রেসকে চুপ করানো যাবে না।


উল্লেখ্য, আগামী ১৩ আগস্ট পর্যন্ত বাদল অধিবেশন চলবে। ততদিন পর্যন্ত সাসপেন্ড থাকবেন তৃণমূল কংগ্রেসে সাংসদ শান্তনু সেন।


ঘটনার সূত্রপাত হয়েছিল বৃহস্পতিবার। পেগাসাস কাণ্ড নিয়ে ইতিমধ্যেই সোচ্চার হয়েছে তৃণমূল। এই ইস্যুতে রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণোর হাত থেকে বক্তৃতার কাগজ ছিনিয়ে নিয়ে সেটি ছুঁড়ে ফেলতে দেখা যায় তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ শান্তনু সেনকে। এরপর সেই ছেঁড়া কাগজটি তিনি রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ নারায়ণ সিংয়ের চেয়ারের দিকে ছুঁড়ে দেন। এই ঘটনায় অশান্ত হয়ে ওঠে রাজ্যসভার অধিবেশনে কক্ষ। তৃণমূল সাংসদদের বিরুদ্ধে সরব হন বিজেপি সাংসদরা। দফায় দফায় সাংসদরা একে অন্যের সঙ্গে বিরোধে জড়িয়ে পড়েন। শেষপর্যন্ত রাজ্যসভার অধিবেশন এদিনের জন্য মুলতুবি করে দেওয়া হয়।


এদিন কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রীর পাশাপাশি অপর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরীর সঙ্গেও তীব্র বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন। একটা সময় পরিস্থিতি নিমন্ত্রণ করতে মার্শালকে ডাকতে হয়। এই ঘটনার জন্য শান্তনু সেনকে সাসপেন্ড করার দাবি জানান বিজেপি সাংসদরা।