বৃহস্পতিবার, ৫ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / করোনা ভ্যাকসিনে পুরুষদের শুক্রাণুর পরিমাণ বাড়ছে – গবেষকদের মতামত

করোনা ভ্যাকসিনে পুরুষদের শুক্রাণুর পরিমাণ বাড়ছে – গবেষকদের মতামত

১৮ থেকে ৫০ বছর বয়স পর্যন্ত পুরুষদের নিয়ে এই সমীক্ষাটি করা হয়েছে।

মিঠুলাল চৌধুরী

করোনা ভ্যাকসিনে পুরুষদের বন্ধ্যাত্বের সমস্যা দেখা দিচ্ছে। এমন একটা দাবি বেশ কিছু দিন ধরেই চারদিকে ঘুরছে। দাবিকে নস্যাৎ করে দিয়ে উল্টো সম্ভাবনার কথা জানাল একটি সমীক্ষা। তাতে দেখা গিয়েছে, ভ্যাকসিন নেওয়ার পর পুরুষদের শুক্রাণুর পরিমাণ কোনো ক্ষেত্রে ৯০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। আমেরিকার মায়ামি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা করোনার ভ্যাকসিনের সাথে পুরুষের বন্ধ্যাত্বের সম্পর্ক আছে কি না, তা জানতে একটি সমীক্ষা করেন। সমীক্ষার রিপোর্টটি প্রকাশিত হয়েছে “দ্য জার্নাল অব দ্য আমেরিকান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন” – এ। সেখানে বলা হয়েছে ভ্যাকসিন নেওয়ার পর শরীরে ২২ শতাংশ থেকে ৯০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে শুক্রাণুর উৎপাদন।


১৮ থেকে ৫০ বছর বয়স পর্যন্ত পুরুষদের নিয়ে এই সমীক্ষাটি করা হয়েছে। ভ্যাকসিন নেওয়ার আগে একবার, প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন নেওয়ার পরে একবার এবং দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিন নেওয়ার পর আবার তাদের শুক্রাণুর পরিমাণ পরীক্ষা করা হয়েছে। তাতে দেখা গিয়েছে, ক্রমশই বেড়েছে শুক্রাণুর উৎপাদন।
এর আগে এক জার্মান সংস্থার সমীক্ষা দেখিয়েছিল, কী ভাবে করোনাকালে কমেছে শুক্রাণু উৎপাদনের হার। শারীরিক পরিশ্রমের পরিমাণ কমে যাওয়া ও গৃহবন্দি থাকার ফলে কারো ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৫০০ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাস পেয়েছিল শুক্রাণুর উৎপাদন। “অক্সিডাইজড স্ট্রেস” – এর কারণে এরকম হয় বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর এই সমস্যা অনেকটা কাটছে বলে দেখা যাচ্ছে।


উল্লেখ্য, সমীক্ষাটি শুধু ফাইজার ও মডার্না ভ্যাকসিনের উপর করা হয়েছে।