বৃহস্পতিবার, ২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / বুনো হাতির আক্রমণে ক্ষতিগ্রস্থ শ্রমিকের বাড়ি

বুনো হাতির আক্রমণে ক্ষতিগ্রস্থ শ্রমিকের বাড়ি

তবে দলবদ্ধ ভাবে এই হাতির আক্রমণ থেকে বরাত জোরে বেঁচে যান পরিবারের সদস্যরা।

অরুপ রায়
করিমগঞ্জ, জুন ৬
,

দক্ষিণ অসমের পাথারকান্দিতে বুনো হাতির তাণ্ডবে অতিষ্ঠ সাধারণ জনগণ। এবার দীর্ঘ প্রায় ছয় মাসের মাথায় পাথারকা‌ন্দি‌র পুত‌নি গ্রাম পঞ্চায়েতের চাম্পাবা‌ড়ির এক হত দ‌রিদ্র চা শ্রমি‌কের বসত বাড়িতে হানা নিয়ে ব্যাপক ক্ষতিসাধন করে বুনো হাতির দল। তবে দলবদ্ধ ভাবে এই হাতির আক্রমণ থেকে বরাত জোরে বেঁচে যান পরিবারের সদস্যরা। এনিয়ে নতুন করে একরাশ আতঙ্কের সৃষ্টি হয় গোটা এলাকা জুড়ে। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, গ‌ভীর রাতে হা‌তির দল‌টি স্থানীয় বাবুল পা‌নিকরের বাড়িতে প্রবেশ ক‌রে তাঁর কলা বাগান বিনষ্ট ক‌রে। প‌রে হা‌তির দল‌টি গৃহকর্তার ঘ‌রে প্রবে‌শের চেষ্টা ক‌রে।এ‌তে ঘ‌রের কিছুটা অংশ ভে‌ঙ্গে প‌ড়ে। প‌রে বাড়ির লোকজন হা‌তি আগম‌নের বার্তা পে‌য়ে হাল্লা চিৎকার সহ মশাল ও টিন বাজা‌লে হা‌তিরা অন‌্যত্র চ‌লে যায়।এমন খব‌রে এলাকার জনম‌নে নতুন ক‌রে ফের একবার বন‌্য হা‌তির আতঙ্ক ছ‌ড়ি‌য়ে প‌ড়ে‌ছে।এমন খব‌রে একরাশ হতাশা প্রকাশ ক‌রে‌ছেন পুত‌নি গ্রাম পঞ্চায়েতের সভা‌নেত্রী নমিতা চাষা(‌গোয়ালা)।এ‌দি‌কে আজ সকা‌লে এই খবর পেয়ে ওই গ্রা‌মের ওয়ার্ড সদস‌্য সঞ্জীব দে কে স‌ঙ্গে নি‌য়ে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা প‌রিদর্শন ক‌রেন পাথারকা‌ন্দির ফ‌রেষ্ট রেঞ্জার দেব‌জ্যো‌তি নাথ।‌তি‌নি সব‌কিছু সরজ‌মি‌নে খ‌তি‌য়ে দে‌খে ক্ষ‌তিগ্রস্থ প‌রিবা‌রের হা‌তে নগদ কিছুটা অর্থ দি‌য়ে সাহায‌্য করার পাশাপা‌শি হা‌তি তাড়া‌নোর জন‌্য তা‌দের হা‌তে বেশকিছু বা‌জি পটাকাও তু‌লে দেন।প্রসঙ্গত, গত দীর্ঘ কয়েক যুগ ধ‌রে বনাঞ্চল থে‌কে বে‌রি‌য়ে এখানকার বি‌ভিন্ন চা বাগান এলাকাসহ ব‌স্তি এলাকায় প্রবেশ ক‌রে জনগ‌নের জানমাল বিনষ্ট ক‌রে চল‌ছে এই বুনো হাতির দলটি। বছ‌রের কয়েকমাস তারা ভার‌তে থাক‌লেও বা‌কি কয়েকমাস লা‌গোয়া বাংলা‌দে‌শে কাটায়।‌ বি‌শেষ ক‌রে পাঁকা ধা‌নের মরশু‌মে তা‌দের ব‌্যাপক উৎপাত প‌রিল‌ক্ষিত হয়।ত‌বে বিভিন্ন সময় হা‌তিরা খা‌দ্যের জন‌্য লোকাল‌য়ে প্রবেশ ক‌রে ।বর্তমা‌নে ধা‌নের মরশুম না থাক‌লেও কলাগাছ ও পাঁকা কাঁঠাল খে‌তে তারা ফের লোকাল‌য়ে প্রবেশ কর‌ছে ব‌লে জানা গে‌ছে।‌বিগত দি‌নে ওই হা‌তি‌র দ‌লে ছোট বড় মোট নয়‌টি হা‌তি থাক‌লেও গত কয় বছ‌রে তা‌দের ম‌ধ্যে পাঁচ‌টি হা‌তির নানা কার‌নে মৃত‌্যু হওয়ায় বর্তমা‌নে দল‌টি‌তে বেঁচে আ‌ছে মাত্র চার‌টি হা‌তি।প্রাক্তন বিধায়ক ম‌ণিলাল গোয়ালা ও কা‌র্তিকসেনা সিনহার সম‌য় বু‌নো হা‌তি‌দের বা‌গে আন‌তে নানা ফর্মুলা হা‌তে নেওয়া হলেও কা‌জের কাজ কিছুই হয়‌নি।এমন‌কি গত চার বছর আ‌গে বর্তমান বিধায়ক কৃ‌ষ্ণেন্দু পা‌লের সম‌য়ে হা‌তি তাড়া‌তে বন বিভাগ কর্তৃক নতুন নতুন পন্থা হা‌তে নেওয়া হ‌লেও সমস‌্যা আজো সেই তি‌মি‌রেই।এক সম‌য় বিষয়‌টি নি‌য়ে বনমন্ত্রী প‌রিমল শুক্ল‌বৈদ‌্য পাথারকা‌ন্দি‌তে হা‌তির তান্ডব রুখ‌তে এক‌টি অস্থায়ী এ‌লি‌ফেন্ট স্কোয়ার্ড টিম গঠন ক‌রে কিছু যুবক‌কে কা‌জে লাগা‌লেও সমস‌্যা কা‌টে‌নি।এমন‌কি উক্ত টি‌মের কর্মীরা আজও তা‌দের হাড়ভাঙ্গা খাটু‌নির পা‌রিশ্রমিকটুকুও পায়‌নি বলে অভিযোগ।