বুধবার, ৪ঠা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / বাবা রামদেবের বিরুদ্ধে হাজার কোটির মানহানি মামলা করল আই এম এ

বাবা রামদেবের বিরুদ্ধে হাজার কোটির মানহানি মামলা করল আই এম এ

যোগগুরুকে পাঠানো নোটিশে আইএমএ জানিয়েছে, অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসাপদ্ধতি নিয়ে রামদেব যে মন্তব্য করেছেন, তার জন্য তাঁকে ১৫ দিনের মধ্যে ক্ষমা চাইতে হবে।

মিঠুলাল চৌধুরী

(ছবি সৌজন্য – এ বি পি)

করোনা মহামারীর আবহে অ্যালোপ্যাথি ওষুধ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের জন্য বাবা রামদেবের বিরুদ্ধে ১ হাজার কোটি টাকার মানহানি মামলা দায়ের করল ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন ( আইএমএ ) – এর উত্তরাখণ্ড শাখা। যোগগুরুকে পাঠানো নোটিশে আইএমএ জানিয়েছে, অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসাপদ্ধতি নিয়ে রামদেব যে মন্তব্য করেছেন, তার জন্য তাঁকে ১৫ দিনের মধ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। ক্ষমা না চাইলে ১ হাজার কোটি টাকা দাবি করা হবে। ইতিমধ্যেই এই নোটিশ রামদেবের কাছে পাঠানো হয়েছে।আই এম এ র প্রধান সচিব অবশ্য বলেছেন যদি রামদেব তাঁর মন্তব্য তুলে নেন এবং প্রকাশ্যে ক্ষমা চান তাহলে তাঁরা বিষয়টি শেষ করার কথা ভাবতে পারেন।সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল এক ভিডিওতে যোগগুরু রামদেবকে বলতে শোনা যায়, অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা আসলে বোকামি। চিকিৎসার নামে তামাশা হয়। লক্ষ লক্ষ মানুষ মারা যাচ্ছে অ্যালোপ্যাথি ওষুধ খেয়ে। রামদেবের দাবি ছিল, করোনার বিরুদ্ধে একের পর এক অ্যালোপ্যাথি ওষুধ ব্যর্থ হচ্ছে। কারণ, ওই চিকিৎসা পদ্ধতিতে রোগের আসল কারণ অনুসন্ধান করা হয় না। অনেক অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা সামনে দেখানো হলেও পেছনে আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা করে সুস্থ করা হয়।এইবক্তব্য ছড়িয়ে পড়তেই দেশজুড়ে সমালোচনা শুরু হয়ে যায়। যদিও পরে বিতর্কের জেরে এই মন্তব্য নিয়ে সাফাই দেওয়া হয়েছে। কিন্ত আইএমএ – র পক্ষ থেকে রামদেবের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনকে চিঠি লেখা হয়। পরে কেন্দ্রিয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর আহ্বানে বাবা রামদেব প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইলেও, আইএমএ – র উদ্দেশ্যে অ্যালোপ্যাথি চিকিৎসা নিয়ে ২৫টি প্রশ্নের তিনি উত্তর চেয়েছেন।