মঙ্গলবার, ২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / করোনা রোগীদের উৎসাহিত করতে চিকিৎসক অরুপ সেনাপতির নৃত্য

করোনা রোগীদের উৎসাহিত করতে চিকিৎসক অরুপ সেনাপতির নৃত্য

এই নাচের ভিডিও এতটাই ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল যে বিবিসি-র মতো বিদেশী মিডিয়াও আমাকে একটি সাক্ষাৎকার দিতে হয়েছিল। বিবিসি আমাকে "দ্য ডান্সিং ডক্টর" উপাধি দিয়েছিল।

ইন্দ্রনীল দত্ত
হাফলং, মে ২৯,

ফের একবার সোসিয়াল মিডিয়ায় নৃত্য। করোনা রোগীদের উৎসাহিত করতে নাচলেন চিকিৎসক অরুপ সেনাপতি। শিলচর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের ইএনটি বিভাগের স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থী অরুপ সেনাপতি কোভিড রোগীদের উৎসাহিত করতে অক্ষয় কুমারের গানের তালে তালে দারুণ নাচলেন। তার সেই ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেলো আরও একবার। স্রেফ হাসপাতালে রোগীদের উৎসাহিত করতেই অক্ষয় কুমারের ২০০৮ সালের গান “ফালাক তাক চাল”য়ে নেচেছেন তিনি। আজ এক টেলিফোনিক সাক্ষাৎকারে শিলচর থেকে অরূপ সেনাপতি জানান যে করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার পাশাপাশি তাদের এই মহামারির প্রভাব থেকে দুরে সরিয়ে রাখতে এবং অনুপ্রানিত করতেই এই নৃত্যকে হাতিহার হিসেবে নিয়েছেন বলে জানান। উল্লেখ্য, ২০২০ তেও গোটা দেশের সংগে শিলচরেও করোনা মহামারির সংকটকালে অরূপ সেনাপতি করোনা রোগীদের উৎসাহিত দিতে হৃত্বিক রোশনের ২০১৯ র হিট “ওয়ার” ছবির সেই জনপ্রিয় “ঘুংঘুরো” গানে নেচে নেট দুনিয়ায় প্রথমবারের মতো জনপ্রিয় হন তিনি। সেদিন পিপিই কিট পরেই হাসপাতালের ওয়ার্ডয়ে “ঘুংঘুরো” গানের তালে নেচে নেট দুনিয়া মাতিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি সবার মনও জয় করেছিলেন। এবার তার দ্বিতীয় ভিডিও নেট দুনিয়ায় খুবই প্রশংসিত হচ্ছে। তিনি বলেন, একজন চিকিৎসকের জীবন খুবই কঠিন। গত বছর কোভিড-১৯ যে দৃশ্যের মুখোমুখি হয়েছিলাম তা খুবই দুঃখজনক ছিল। এই মুহুর্তে দ্বিতীয় তরঙ্গ আকারে এটি আরও হতাশাজনক এবং বিরক্তিকর ঠেকেছে।
এই দ্বিতীয় তরঙ্গে ভাইরাসটি প্রতিটি পরিবারের দরজায় কড়া নাড়ছে। এই ভাইরাস আমার পরিবারের এক সদস্যকে হারাতে হয়েছে। আমি অনেক রোগীর জীবন হারাতে দেখিছি। আমি সাম্প্রতিক কভিড আইসিইউ কর্তব্যরত অবস্থায় কত কিছুই দেখেছি।
এসবের মধ্যেই আমি নিজেকে বোঝানোর চেষ্টা করছি যে সবকিছু ঠিকঠাক হয়ে যাবে। আমি বিশ্বাস করি যদি আমি রোগীদের উপযুক্ত চিকিৎসা এবং নার্সিং করি তবে আমি তাদের কাছ থেকে প্রচুর ভালবাসা এবং আশীর্বাদ পাব যা অমূল্য। বলুন তো এই জীবনে আর কি চাইবেন? যে কেউ করোনা রোগী সুস্থ হয়ে উঠলেই সেটা আমাদের উৎসাহ দেয়। গত বছর আমার “ঘুংঘুরো”নাচ খুবই ভাইরাল হয়েছিল। লোকেরা আমাকে ভালবাসত, আমাকে আশীর্বাদ করেছিল। এটা আমার কাছে এক আশীর্বাদ বলতে পারেন। তিনি আরও বলেন, এই নাচের ভিডিও এতটাই ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল যে বিবিসি-র মতো বিদেশী মিডিয়াও আমাকে একটি সাক্ষাৎকার দিতে হয়েছিল। বিবিসি আমাকে “দ্য ডান্সিং ডক্টর” উপাধি দিয়েছিল। তবে দিনের শেষে আমি একজন ডাক্তার। উল্লেখ্য, অরূপ সেনাপতি মূলত জলুকবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের দাদারা এলাকার বাসিন্দা।