শুক্রবার, ৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / গ্রামাঞ্চলে করোনা মোকাবেলায় কেন্দ্রের নতুন নির্দেশিকা জারি

গ্রামাঞ্চলে করোনা মোকাবেলায় কেন্দ্রের নতুন নির্দেশিকা জারি

গ্রামীণ এবং আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকায় আশা কর্মীদের পর্যাপ্ত পরিমাণে পালস অক্সিমিটার এবং থার্মোমিটার দেওয়ার নির্দেশ। তবে সেই সঙ্গে এটাও বলা হয়েছে , প্রতিবার ব্যবহারের পর ওই থার্মোমিটার এবং অক্সিমিটার স্যানিটাইজ করতে হবে। হোম আইসোলেশনে থাকা

মিঠুলাল চৌধুরী

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় বেসামাল গোটা দেশ। যতদিন যাচ্ছে শহরাঞ্চলে করোনা গ্রাফ সামান্য নিম্নগামি হলেও গ্রামাঞ্চলে উদ্বেগ বাড়িয়ে ক্রমশ ঊর্ধ্বগামী হচ্ছে সংক্রমণের গ্রাফ। ভারতে করোনা শহর ছাড়িয়ে মফঃস্বল সহ গ্রামীণ অঞ্চলে জোরকদমে বিস্তার লাভ করছে। দেশের সাড়ে ছয় লক্ষ গ্রামে ৯০ কোটি ভারতীয় বসবাস করেন। এই পরিস্থিতিতে এবার দেশের শহরতলি, গ্রামীণ এবং আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকাগুলির জন্য বিশেষ নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্রিয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক ।

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের জারি করা এসওপিতে গ্রামীণ এলাকায় করোনা রুখতে একাধিক নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে।করোনা মোকাবেলায় নজরদারি, স্কিনিং, হোম এবং কমিউনিটি ভিত্তিক আইসোলেশন।আরও বেশি র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের উপর জোর দেওয়া।যে রোগীর অক্সিজেনের মাত্রা কম, তাঁকে হাসপাতালে ভর্তির নির্দেশ।গ্রামীণ এলাকাগুলোতে করোনা, ইনফ্লুয়েঞ্জা, হাঁপানি সংক্রান্ত রোগীদের স্বাস্থ্যের খোঁজ নিতে আশা কর্মীদের সাহায্য নেওয়া।কী করণীয় এবং কী করা যাবে না, তা একটি লিফলেটে ছাপিয়ে আক্রান্তকে দিতে হবে।গ্রামীণ এবং আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকায় আশা কর্মীদের পর্যাপ্ত পরিমাণে পালস অক্সিমিটার এবং থার্মোমিটার দেওয়ার নির্দেশ। তবে সেই সঙ্গে এটাও বলা হয়েছে , প্রতিবার ব্যবহারের পর ওই থার্মোমিটার এবং অক্সিমিটার স্যানিটাইজ করতে হবে। হোম আইসোলেশনে থাকা করোনা আক্রান্তদের ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে নির্দিষ্ট কিছু ওষুধ যেমন প্যারাসিটামল, কাশির ওষুধ ও মাল্টিভিটামিন ট্যাবলেট দেওয়ার কথাও ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে।