রবিবার, ২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / আফগানিস্তানে স্কুলে বিস্ফোরণ, মৃত ৫০

আফগানিস্তানে স্কুলে বিস্ফোরণ, মৃত ৫০

ত মাসে আমেরিকার পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় আগামি সেপ্টেম্বরে কাবুল থেকে তাদের সেনা বাহিনী সরিয়ে নেওয়া হবে। এর আগে কথা ছিল মে মাসের মধ্যেই সরানো হবে আমেরিকান সেনা। আমেরিকার এই সিদ্ধান্তের পরেই তালিবানের তরফে

মিঠুলাল চৌধুরী

আফগানিস্তানের একটি স্কুলে ধারাবাহিক বোমা বিস্ফোরণে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ৫০ জন। জখমের সংখ্যা অনেক। শনিবার আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে ঘটনাটি ঘটেছে। রাষ্ট্রপতি আশরাফ গনি ঘটনার নিন্দা করেছেন এবং এর পিছনে তালিবানদের হাত রয়েছে বলে দাবি করেছেন। সংবাদ সুত্র থেকে জানা গিয়েছে যে সৈয়দ উল সুহাদা স্কুলে বিস্ফোরণটি হয়। আহতদের স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মৃতদের মধ্যে অধিকাংশই ছাত্রী।
উল্লেখ্য, গত মাসে আমেরিকার পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় আগামি সেপ্টেম্বরে কাবুল থেকে তাদের সেনা বাহিনী সরিয়ে নেওয়া হবে। এর আগে কথা ছিল মে মাসের মধ্যেই সরানো হবে আমেরিকান সেনা। আমেরিকার এই সিদ্ধান্তের পরেই তালিবানের তরফে হুমকি দেওয়া হয়, এর ফল ভাল হবে না। এই বিস্ফোরণটি আসলে আফগানিস্তানে নারীশিক্ষার পথ বন্ধ করার উদ্দেশ্যে বলেও অনেকে দাবি করেছেন। সৈয়দ উল সুহাদা স্কুলটি ছেলে এবং মেয়ে উভয়ের জন্য তিনভাগে প্রতিদিন ক্লাস হয়।
এদিকে আমেরিকা ও কাবুলের গনতান্ত্রিক সরকারের সাথে তালিবানরা আলোচনা করলেও শরীয়তি আইন প্রতিষ্ঠা করাই জঙ্গীগোষ্ঠীটির যে আসল উদ্দেশ্য তা বারবারই স্পষ্ট হয়েছে। অনেকের মতে, আফগানিস্তান থেকে আমেরিকান বাহিনী চলে গেলে বর্তমান সরকারের পতন শুধু সময়ের অপেক্ষা মাত্র। ফের ক্ষমতা হাতে পেলে আফগানিস্তানে তালিবানি অরাজকতা ফিরবে। শরীয়ত আইন চালুর নামে ফের মহিলাদের অধিকার কেড়ে নেওয়া হবে।