শনিবার, ২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / কোনো প্রার্থীকেই পছন্দ নয়, পড়ল নোটায় ভোট

কোনো প্রার্থীকেই পছন্দ নয়, পড়ল নোটায় ভোট

সরকারি সূত্রে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ি, ২০২১ সনের অসম রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে কাছাড় জেলার মোট সাতটি বিধানসভা কেন্দ্রে এবার ৯৪১৮ ভোট নোটায় পড়েছে।

অরুপ রায় ও শঙ্করী চৌধুরী

করিমগঞ্জ/হাইলাকান্দি, মে ৪,

রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীদের ভিড়েও আজকের দিনে সাধারণ জনগণের বেশি পছন্দের নোটা।
দক্ষিণ অসমের বরাক উপত্যকার তিন জেলা কাছাড়, করিমগঞ্জ ও হাইলাকান্দিতে এবার ২০১৬ র বিধানসভা নির্বাচন থেকেও অনেক বেশি ভোট নোটায় পড়েছে।
পঞ্চদশ রাজ্য বিধানসভা ভোটে করিমগঞ্জ জেলায় এবার ঝড়ো ইনিংস খেলেছে এই নোটাই। সরকারি তথ্য মতে, সদ্য অনুষ্ঠিতব্য ২০২১ র রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে করিমগঞ্জ জেলায় মোট পাঁচটি বিধানসভা সমষ্টির মধ্যে ৬৩৫৯ জন ভোটার এবার নোটা বোতাম টিপলেন। শুধু তাই নয় এই তথ্যমতে কেবলমাত্র বদরপুর ছাড়া পাথারকান্দি, রাতাবাড়ি, উত্তর করিমগঞ্জ ও দক্ষিণ করিমগঞ্জ আসনে অসম গণ পরিষদ, রিপাবলিকান পার্টি, অল ইন্ডিয়া ফ্রিডম পার্টি, ভারতীয় জাতীয় পরিষদ, রাষ্ট্রীয় উলামা কাউন্সিল সহ নির্দল বেশ কিছু প্রার্থীদের চেয়েও বেশি ভোট পেয়ে চার আসনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে নোটা। অর্থাৎ এ থেকে স্পষ্ট যে আজকের প্রজন্মের ঝোঁক অনেকটা নোটার দিকেই ধাবিত হচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের গণনা থেকে প্রাপ্ত তথ্য মতে এবার জেলার রাতাবাড়ি আসনে ১২০০ টি, পাথারকান্দিতে ১২৮৮ টি, দক্ষিণ করিমগঞ্জে ৯৮৫ টি, উত্তর করিমগঞ্জে ১১৮০ টি ও বদরপুর আসনে ১৭০৬ টি ভোট নোটায় পড়েছে। যা গত বিধানসভা নির্বাচন থেকে প্রায় দ্বিগুন হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

সরকারি সূত্রে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ি, ২০২১ সনের অসম রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে কাছাড় জেলার মোট সাতটি বিধানসভা কেন্দ্রে এবার ৯৪১৮ ভোট নোটায় পড়েছে। এরমধ্যে ১৩৭৯ টি ভোট জেলার শিলচর আসনে পড়েছে। কাটিগড়া বিধানসভা আসনে ১১১২ টি ভোট নোটায় পড়েছে। ধলাই বিধানসভা আসনে ১৫৬১ নোটায় পড়েছে। এছাড়া উধারবন্দ বিধানসভা কেন্দ্রে ১৪৯৪ ভোট, সোনাই আসনে ১২৩১ ভোট, লক্ষিপুর আসনে ১৫৩৬ টি ভোট এবং বড়খলা আসনে ১১০৫ টি ভোট নোটায় পড়েছে।

এদিকে হাইলাকান্দি জেলার মোট তিনটি বিধানসভা কেন্দ্রে মোট ২২০৫ ভোট নোটাতে পড়েছে। এরমধ্যে আলগাপুর কেন্দ্রে ৪৪২, কাটলিছড়া কেন্দ্রে ৭৪৫ এবং হাইলাকান্দি কেন্দ্রে ১০৬৩টি ভোট নোটাতে পড়েছে বলে সরকারি তথ্যমতে জানা গেছে। ২০১৬ সনের অসম রাজ্য বিধানসভা নির্বাচন থেকে প্রায় দ্বিগুণ ভোট নোটাতে পড়েছে বলে জানা গেছে।

বরাক উপত্যকার তিন জেলার ১৫ টি আসনের মধ্যে কাছাড় জেলার ৭ টি আসনে শিলচরে বিজেপি প্রার্থী দ্বীপায়ন চক্রবর্তী ৯৮৫৫৮ ভোটে জয়লাভ করেন। কাটিগড়া আসনে কংগ্রেস প্রার্থী খলিল উদ্দিন মজুমদার ৮৩২৬৮ ভোটে জয়ী হন। এছাড়া ধলাই আসনে পরিমল শুক্লবৈদ্য ৮২৫৬৮ ভোটে, উধারবন্দ আসনে বিজেপি প্রার্থী মিহির কান্তি সোম ৬১৭৪৫ ভোটে, সোনাই আসনে এআইইউডিএফ প্রার্থী করিম উদ্দিন বড়ভূঁইয়া ৭১৯৩৭ ভোটে, লক্ষিপুর আসনে বিজেপি প্রার্থী কৌশিক রাই ৫৫৩৪১ ভোটে এবং বড়খোলা আসনে কংগ্রেস প্রার্থী মিসবাহুল ইসলাম লস্কর ৬৪৪৩৩ ভোট পেয়ে জয়ী হন।
করিমগঞ্জ জেলার পাঁচটি বিধানসভা আসনের মধ্যে রাতাবাড়ি আসনে ৭৩৪৭২ ভোট পেয়ে জয়ী হন বিজেপির বিজয় মালাকার । পাথারকান্দি আসনে বিজেপির কৃষ্ণেন্দু পাল জয়ী হন ৭৩৪৭২ ভোটে। উত্তর করিমগঞ্জ আসনে ৬০৭৬৮ ভোট পেয়ে হ্যাটট্রিক করেন কংগ্রেস প্রার্থী কমলাক্ষ দে পুরকায়স্থ। দক্ষিণ করিমগঞ্জ আসনে কংগ্রেস প্রার্থী সিদ্দেক আহমেদ জয়ী হন ৮৭৫২৬ ভোট পেয়ে। ৭২৮৩৬ ভোট পেয়ে বদরপুর আসনে ইউডিএফ প্রার্থী আব্দুল আজিজ জয়লাভ করেন।

এদিকে হাইলাকান্দি জেলার তিনটি বিধানসভা আসনই এআইইউডিএফের দখলে চলে যায়। আলগাপুর আসনে এআইইউডিএফ প্রার্থী নিজামুদ্দিন চৌধুরী দ্বিতীয়বারের মতো বিধায়ক হিসেবে মনোনীত হন। তার প্রাপ্ত ভোট ৬৫৪১৭। হাইলাকান্দি বিধানসভা আসনে এআইইউডিএফ প্রার্থী জাকির হোসেন লস্কর ৭১০৫৭ ভোট পেয়ে জয়ী হন এবং কাটলিছড়া আসনে এআইইউডিএফ প্রার্থী সুজাম উদ্দিন ৭৯৭৬৯ ভোট পেয়ে জয়ী হন।