শনিবার, ৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি, গোটা অসমে রাত ৮টা থেকে নৈশ সান্ধ্য আইন জারি

করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি, গোটা অসমে রাত ৮টা থেকে নৈশ সান্ধ্য আইন জারি

দেশ জুড়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় ঊর্ধ্বগামী সংক্রমণের গ্রাফ। রাজ্যে উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে করোনা সংক্রমিত রোগী । এই পরিস্থিতিতে অসম সরকার আজ থেকে রাজ্যে নৈশ সান্ধ্য আইন জারি করেছে।

মিঠুলাল চৌধুরী
দেশ জুড়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় ঊর্ধ্বগামী সংক্রমণের গ্রাফ। রাজ্যে উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে করোনা সংক্রমিত রোগী । এই পরিস্থিতিতে অসম সরকার আজ থেকে রাজ্যে নৈশ সান্ধ্য আইন জারি করেছে।২৭ এপ্রিল রাত ৮টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত, প্রতিদিন করোনা কার্ফু চলবে। এই নৈশ সান্ধ্য আইন অসমে আগামি ১  মে পর্যন্ত জারি থাকবে। দোকান, বাজার আগের মতোই সন্ধ্যা ৬টায় বন্ধ হবে। নৈশ সান্ধ্য আইন চলাকালিন সময়ে জরুরিকালিন সেবা অব্যাহত থাকবে। 


এছাড়া ৩০০ – র অধিক করোনা সংক্রমিত রোগী হওয়ার কারণে গুয়াহাটী ও যোরহাটের সমস্ত প্রাথমিক থেকে বিশ্ববিদ্যালয়  সবধরনের স্কুল , কলেজ, হোস্টেল ও কোচিং সেন্টার আগামি ১২মে পর্যন্ত বন্ধ  থাকবে। অসমে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ৩,১৩৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের। এদিকে আগামী ২ মে বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগণনা হবে। নির্বাচন কমিশন এক নির্দেশ জারি করে জানিয়েছেন , ২মে নির্বাচনী ফলাফল পরবর্তী সময়ে কোন দল বা প্রার্থী বিজয় উৎসব করে মিছিল বের করতে পারবেন না। রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে নির্বাচন কমিশনের এই কঠোর নির্দেশ।

দেশ জুড়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় ঊর্ধ্বগামী সংক্রমণের গ্রাফ। রাজ্যে উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে করোনা সংক্রমিত রোগী । এই পরিস্থিতিতে অসম সরকার আজ থেকে রাজ্যে নৈশ সান্ধ্য আইন জারি করেছে।২৭ এপ্রিল রাত ৮টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত, প্রতিদিন করোনা কার্ফু চলবে। এই নৈশ সান্ধ্য আইন অসমে আগামি ১  মে পর্যন্ত জারি থাকবে। দোকান, বাজার আগের মতোই সন্ধ্যা ৬টায় বন্ধ হবে। নৈশ সান্ধ্য আইন চলাকালিন সময়ে জরুরিকালিন সেবা অব্যাহত থাকবে। এছাড়া ৩০০ – র অধিক করোনা সংক্রমিত রোগী হওয়ার কারণে গুয়াহাটী ও যোরহাটের সমস্ত প্রাথমিক থেকে বিশ্ববিদ্যালয়  সবধরনের স্কুল , কলেজ, হোস্টেল ও কোচিং সেন্টার আগামি ১২মে পর্যন্ত বন্ধ  থাকবে। অসমে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় সংক্রমিত রোগীর সংখ্যা ৩,১৩৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৫ জনের। এদিকে আগামী ২ মে বিধানসভা নির্বাচনের ভোটগণনা হবে। নির্বাচন কমিশন এক নির্দেশ জারি করে জানিয়েছেন , ২মে নির্বাচনী ফলাফল পরবর্তী সময়ে কোন দল বা প্রার্থী বিজয় উৎসব করে মিছিল বের করতে পারবেন না। রাজ্যে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে নির্বাচন কমিশনের এই কঠোর নির্দেশ।