বুধবার, ৪ঠা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / করোনা সংক্রমণ বাড়লেও এই মুহূর্তে লকডাউন হচ্ছে না

করোনা সংক্রমণ বাড়লেও এই মুহূর্তে লকডাউন হচ্ছে না

এনিয়ে সচেতন মানুষ ধন্দে পড়েছেন।

শতানন্দ ভট্টাচার্য

দেশে অস্বাভাবিকভাবে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ মানুষ আতঙ্কিত। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি গতকাল বলে দিয়েছেন খুব বেশি করে টিকা দিতে। আগামী ১১ থেকে ১৪ এপ্রিল টিকা উৎসব পালন করার কথা তিনি বলেছেন। রাত নটা বা দশটা থেকে সকাল পাঁচটা পর্যন্ত নৈশ কার্ফুর কথা রাজ্য সরকার ভাবতে পারে বলেও পরামর্শ দিয়েছেন। তিনি এই নৈশ কার্ফুকে করোনা কার্ফু হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।

দেশে এই মুহূর্তে প্রতিদিন ১ লক্ষ ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। মহারাষ্ট্র, ছত্তিশগড়, গুজরাত, পাঞ্জাব, তামিলনাড়ুর অবস্থা খুবই ভয়াবহ।

উত্তর পুর্বের রাজ্যগুলোর মধ্যে অসমেও সংক্রমণ বাড়ছে যদিও এই মুহূর্তে নৈশ কার্ফু বা লকডাউন দেওয়ার কোনো প্ল্যান সরকারের কাছে নেই বলে সরাসরি জানিয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা। অবশ্য এর আগে শর্মা নিজেই বলেছিলেন যে অসমের বর্তমান পরিস্থিতিতে মাস্ক পরার প্রয়োজন নেই। যখন দরকার হবে তখন তিনি বলবেন। এ নিয়ে প্রচুর সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। যিনি গত বছর করোনা শুরুর সময় সবাইকে সচেতন করেছেন এবং লকডাউন এর পোষকতা করেছিলেন সেই হিমন্ত বিশ্ব শর্মা বলছেন যে মাস্ক পরার দরকার নেই। আগামী সপ্তাহে আনন্দ সহকারে বিহু উৎসব পালনের আহ্বান জানিয়েছেন শর্মা। এনিয়ে সচেতন মানুষ ধন্দে পড়েছেন।

এদিকে ভ্যাকসিনের দুটো ডোজ নেওয়ার পরও কিছু লোক করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় সাধারণ মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। তবে বর্তমানে পাঁচটি রাজ্যে নির্বাচন থাকায় পরিস্থিতি অবনতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এব্যাপারে উত্তরপূর্ব ভারতের সবচেয়ে বহুল প্রচারিত ও পুরনো ইংরেজি দৈনিক দ্য আসাম ট্রিবিউন আজকের সংস্করণের প্রথম পাতায় ব্যঙ্গাত্মক ভাবে লিখেছে ইলেকশন ইজ দ্য বেস্ট ভ্যাকসিনেশন এগেইনস্ট কোবিড (নির্বাচন হচ্ছে কোভিডের বিরুদ্ধে ভালো ভ্যাকসিন)। এটা অনেককেই হাসির খোরাক যুগিয়েছে।