বৃহস্পতিবার, ৫ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / পরীক্ষা অফলাইনেই হচ্ছে, ছাত্রছাত্রীদের হিংসাত্মক কাজে না জড়ানোর আহ্বান জেলাশাসকের

পরীক্ষা অফলাইনেই হচ্ছে, ছাত্রছাত্রীদের হিংসাত্মক কাজে না জড়ানোর আহ্বান জেলাশাসকের

অসম বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান হিসেবে অভিহিত করে তিনি বলেন, যে অনলাইন বা অফলাইনে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে কিনা তা সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের উপর নির্ভর করে।

নিউজফাইল সংবাদ,


শিলচর, এপ্রিল ৬,

শিলচরের অসম বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বীকৃত কলেজগুলির শিক্ষার্থীরা তাদের সেমিস্টার পরীক্ষা অনলাইনে করার দাবিতে গত কয়েকদিন ধরে বিক্ষোভ পালন করছে। শিক্ষার্থীদের আশংকা,যখন দেশজুড়ে করোনার প্রভাব আবারও ছড়িয়ে পড়ছে এমন সময়ে পরীক্ষা অফলাইনে হলে তারা কোভিড ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন।

কাছাড়ের জেলাশাসক কীর্তি জল্লি উদ্বেগ প্রকাশ করে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। অসম বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান হিসেবে অভিহিত করে তিনি বলেন, যে অনলাইন বা অফলাইনে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে কিনা তা সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের উপর নির্ভর করে।

জল্লি বলেন, “অফলাইন বা অনলাইন মোডে পরীক্ষা হবে কি না, এ সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা আমার আওতায় আসে না এবং আমরা যা করতে পারি তা হলো, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সামনে শিক্ষার্থীদের কথা তুলে ধরতে পারি ”।

সোমবার শিলচরে জেলাশাসকের কার্যালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত এক সভায় অসম বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার, কাছাড় জেলার সব কলেজের অধ্যক্ষ এবং কয়েকজন ছাত্র প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে সর্বসম্মতভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে শিডিউল অনুযায়ী পরীক্ষা অফলাইনে পরিচালিত হবে।

“আসাম বিশ্ববিদ্যালয় একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান এবং আমরা তাদের সিদ্ধান্ত গ্রহণে হস্তক্ষেপ করতে পারি না। তারা ইউজিসির নির্দেশিকা অনুযায়ী চলে। ডিসি আরও বলেন, গুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয় এবং ডিব্রুগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো অন্যান্য রাজ্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলিও সম্ভবত অফলাইনে পরীক্ষা নিয়েছিল যা অসম বিশ্ববিদ্যালয় অনুসরণ করছে।

কোভিড ঝুঁকি নিয়ে শিক্ষার্থীদের উদ্বেগের প্রসংগ টেনে জল্লি উল্লেখ করেন যে তিনি পরীক্ষার হলে প্রবেশের আগে শিক্ষার্থীদের স্ক্রিনিংয়ের জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ সরবরাহ করতে পারবেন। তবে পরীক্ষা পরিচালনার সিদ্ধান্ত তার পরিধির বাইরে।

“আমি প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে অনুরোধ করছি যেন তারা কোনও হিংসার আশ্রয় না নেয় এবং একই সংগে তাদের প্রতিবাদও বন্ধ করে দেয়। আলোচনা ইতিমধ্যে হয়েছে এবং আমি সবাইকে সহযোগিতা করার অনুরোধ করব” তিনি বলেন।