শুক্রবার, ৩০শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / ভোটার ৯৩ জন, ভোট পড়ল ১৮১টি, ৫ জন কর্মী বরখাস্ত

ভোটার ৯৩ জন, ভোট পড়ল ১৮১টি, ৫ জন কর্মী বরখাস্ত

উমরাংশু পুলিশ ফাঁড়ির অধীনে খটলিয়ার এল পি স্কুলে এবার প্রথমবার সহযোগী ভোট কেন্দ্র গড়ে তোলা হয়েছিল।

ইন্দ্রনীল দত্ত, হাফলং,,

এক এপ্রিল রাজ্যের অন্যান্য জেলার সংগে ১৬ নং হাফলং বিধানসভা কেন্দ্রেও ভোট হয়েছে। কিন্তু ওই ভোটের সময় এক অদ্ভুত কান্ড ঘটে গেল। সেই কান্ড দেখে খোদ নিবাচন কমিশনের চক্ষু চড়কগাছ। ডিমা হাসাও জেলার শিল্পনগরী উমরাংশুর ১০৭ (এ) নম্বর খটলিয়ার এলপি স্কুলে ভোট কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিলেন ৯৩ জন। কিন্তু নিবাচন আধিকারিকদের চুড়ান্ত অবহেলার জন্য ১০৭ নম্বার ভোট কেন্দ্র মুলধান এল পি স্কুল এবং খটলিয়ার এল পি স্কুল ১০৭(এ)। উমরাংশু পুলিশ ফাঁড়ির অধীনে খটলিয়ার এল পি স্কুলে এবার প্রথমবার সহযোগী ভোট কেন্দ্র গড়ে তোলা হয়েছিল। অদ্ভুত কান্ড হচ্ছে যে ১০৭ (এ) নম্বর খটলিয়ার এলপি স্কুলে ভোট কেন্দ্রে মোট ভোটার ছিলেন ৯৩ জন। কিন্তু সেখানে ভোট পড়ে ১৮১ টি। খবর নিয়ে জানা গেছে মুলধান কেন্দ্রের ভোটাররা খটলিয়া কেন্দ্রে ভোট দিয়ে চলে যান। নিবাচন অফিসারদের চুড়ান্ত গাফলতির জন্য এমন কান্ড সংগঠিত হয়েছে। নিদিষ্ট ভোট কেন্দ্রের ভোট তালিকায় নাম না থাকার পরও নিবাচন অফিসারদের শুধু মাত্র ভোটার আইডি দেখিয়ে ভোটাররা নিজেদের ভোটাধিকার সাব্যস্ত করেন। এই ঘটনার জন্য নির্বাচন কমিশন সেক্টর অফিসার সেইখসিয়াম লাংওম, প্রিসাইডিং অফিসার প্রহ্লাদ রায়, পোলিং অফিসার পরমেশ্বর চারাংসা, স্বরাজ কান্তি দাস এবং লালজামো থিয়েককে চাকরি থেকে বরখাস্ত করেছে। খুব শিগগির এই দুই কেন্দ্রে পুনরায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত করার জন্য নিবাচন কমিশনে রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে।