শনিবার, ৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / বিধায়কের গাড়িতে ইভিএম পাওয়ার ঘটনায় করিমগঞ্জে ৬ জন গ্রেফতার

বিধায়কের গাড়িতে ইভিএম পাওয়ার ঘটনায় করিমগঞ্জে ৬ জন গ্রেফতার

প্রাইভেট ভ‍্যাহিকলে করে কেন ইভিএম নিয়ে আসা হল, এর পেছনে বিশেষ কোন কারণ রয়েছে কি না যাবতীয় বিষয় পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তদন্ত করে তিন দিনের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।

অরূপ রায়, করিমগঞ্জ


দ্বিতীয় দফায় ভোটের দিন রাতে দক্ষিণ অসমের করিমগঞ্জ জেলার কানিশাইলে বিধায়কের গাড়িতে ইভিএম কাণ্ডে জড়িত সন্দেহে ছয়জনকে পুলিশ আটক করেছে। শুক্রবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ছয়জনকে আটক করে। এরা হলো নুমান উদ্দিন, সালেকুর রহমান, সালে আহমেদ, ইকবাল খান, সুলতান মোহাম্মদ এবং মস্তাক আহমেদ। এদের মধ্যে তিনজনকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এই মামলার তদন্তকারী আধিকারিক মনিরুল ইসলামকে এবিষয়ে জিজ্ঞেস করলে ব‍্যস্ততার অজুহাত দেখিয়ে কিছু বলতে চাননি। একটি সূত্রে জানা গেছে, সদর থানায় ওইদিনের ঘটনা নিয়ে ৩১৩/ ২০২১ নম্বরে মামলা রুজু করা হয়েছে।ভারতীয় দণ্ড বিধির ১২০( বি), ১৪৩, ১৪৭, ৩৩২, ৩৩৩, ৩৪১, ৩৩৯, ৪০২, ৪২৭ ধারায় মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে।
এদিকে ইভিএম কাণ্ডের ম‍্যাজিস্ট্রেট তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন জেলা ম‍্যাজিস্ট্রেট তথা করিমগঞ্জের উপায়ুক্ত আনবামুথান এমপি। এডিশনাল ডিস্ট্রিক্ট ম‍্যাজিস্ট্রেট রাজেশন তেরাঙকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এই তদন্ত কার্যে তাকে সহায়তা করবেন অ‍্যাসিস্টেন্ট কমিশনার সৌভিক দত্ত। প্রাইভেট ভ‍্যাহিকলে করে কেন ইভিএম নিয়ে আসা হল, এর পেছনে বিশেষ কোন কারণ রয়েছে কি না যাবতীয় বিষয় পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে তদন্ত করে তিন দিনের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।
এদিকে এআইইউডিএফ দলের কেন্দ্রীয় কমিটির ছাত্র শাখার সাধারণ সম্পাদক বরাক উপত্যকার ইনচার্জ, ইকবাল খানকে আটক করা নিয়ে হৈচৈ শুরু হয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে ইকবালের কোন সম্পর্ক নেই। তাকে অযথা হয়রানি না করে অতি সত্বর মুক্তি দেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে। অন্যথায় বরাকের ছাত্রসমাজ রাস্তায় নামতে বাধ্য হবে বলে হুমকি দিয়েছে ছাত্র সংগঠন। নিরিহ মানুষদের হয়রানি বন্ধ করে পুরো ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি জানিয়েছে সংগঠন ।
উল্লেখ্য, পাথারকান্দির বিধায়ক কৃষ্ণেন্দু পালের গাড়িতে করে ইভিএম নিয়ে আসার ঘটনায় এক এপ্রিল দ্বিতীয় পর্যায়ের ভোটের দিন রাতে রণক্ষেত্রের রূপ নেয় কানিশাইল। উত্তেজিত জনতাকে শান্ত করতে নিরাপত্তা রক্ষীদের শূণ‍্যে গুলি করতে হয় I