সোমবার, ২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / মেঘালয়ের কয়লা সুতারকান্দি দিয়ে বাংলাদেশে রপ্তানি হচ্ছে,পুনরায় সক্ৰিয় কয়লা সিণ্ডিকেট চক্ৰ, অভিযোগ

মেঘালয়ের কয়লা সুতারকান্দি দিয়ে বাংলাদেশে রপ্তানি হচ্ছে,পুনরায় সক্ৰিয় কয়লা সিণ্ডিকেট চক্ৰ, অভিযোগ

ন্যাশনাল গ্রীন ট্রাইবুন্যাল কয়েক বছর ধরে মেঘালয়ের কয়লার খনিতে কয়লা উত্তোলন করা বন্ধ করে রেখেছে।

অরুপ রায়,
করিমগঞ্জ, মার্চ ২৩,

নিৰ্বাচনি অধিসূচনা জারি হওয়ার সাথে সাথে সমগ্ৰ রাজ্যের জাতীয় সড়ক, পুর্ত সড়কের ওপরে চলছে তল্লাশি । প্রতিদিনই জব্দ করা হচ্ছে লাখ লাখ টাকার মাদক দ্ৰব্যসহ নগদ ধন। নিরাপত্তা রক্ষীদের দিন রাত টহল দেওয়ার মধ্যে দিয়ে কিভাবে মেঘালয় থেকে অবৈধ ভাৱে কয়লা অসমের বরাক উপত্যকার মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ এবং ত্ৰিপুরা রাজ্যে সরবরাহ হয়ে আসছে। নিৰ্বাচনি অধিসুচনা জারি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে হঠাৎ তৎপর হয়ে উঠেছে কয়লার সিণ্ডিকেট চক্ৰ। মেঘালয়ের কয়লার খনি থেকে দিন রাত মালিডহর, গুমড়া, কালাইন হয়ে বরাক উপত্যকার মধ্যে দিয়ে সুতারকান্দি হয়ে রপ্তানি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অন্য আর একটি পথে করিমগঞ্জ পুলিশের চুরাইবাড়ি তল্লাশি চকি দিয়ে ত্ৰিপুরায় শত শত ট্ৰাক কয়লা সরবরাহ হয়ে আসছে।

উল্লেখ্য যে ন্যাশনাল গ্রীন ট্রাইবুন্যাল কয়েক বছর ধরে মেঘালয়ের কয়লার খনিতে কয়লা উত্তোলন করা বন্ধ করে রেখেছে। অৰ্থাৎ কয়লা উত্তোলনে নিষেধাজ্ঞা জারি করে রাখার পরও সিণ্ডিকেট চক্ৰ এই নিষেধাজ্ঞাকে অবমাননা করে অবৈধ ভাৱে দৈনিক শত শত ট্ৰাক কয়লা সরবরাহ করে আসছে। নিৰ্বাচনের দিন ঘোষনা করার সঙ্গে সঙ্গে চক্ৰটি আরো তৎপর হয়ে উঠেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মেঘালয়ের থেকে কোনো ধরনের বৈধ কাগজপত্ৰ ছাড়া অসমের চালান দিয়ে সুতারকান্দি আন্তর্জাতিক বাণিজ্য কেন্দ্ৰে দিয়ে দৈনিক শতাধিক কয়লা ভৰ্তি ট্ৰাক বাংলাদেশে রপ্তানি হচ্ছে । এই সিণ্ডিকেট বাহিনী এক একটি ট্ৰাক থেকে ৬০ / ৭০ হাজার টাকা নিয়ে মেঘালয় থেকে অসমের বরাক উপত্যকায় প্ৰবেশ করে বলেও অনেকেই নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যক্তি অভিযোগ করেছেন। এই সম্পুৰ্ণ সিন্ডিকেট গুৱাহাটী থেকে নিয়ন্ত্ৰণ করে হচ্ছে বলেও অভিযোগ।পুলিশের একজন উচ্চ পদস্থ আধিকারিকের সঙ্গে সংবাদ জগতের একজন মালিক জড়িত বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে ।আগে এভাবে নাগাল্যান্ডের কাগজ দিয়ে মেঘালয়ের কয়লা বাংলাদেশে রপ্তানি করা হয়েছিল।ফলে সি বি আই অনুসন্ধান চালিয়ে অবৈধ কাগজ এবং কয়লা রপ্তানির বিরুদ্ধে কেস রেজিস্টার করে আদালতে হস্তান্তর করে।বৰ্তমানে গুৱাহাটীর বিশেষ আদালতে কেস চলছে। এবার সেই একই পদ্ধতিতে নাগাল্যান্ডের পরিবৰ্তে অসমের কাগজে মেঘালয়ের কয়লা বাংলাদেশে রপ্তানি করা হচ্ছে । শুল্ক বিভাগ পুনরায় কি ভাবে অসমের কাগজে মেঘালয়ের কয়লা বাংলাদেশে রপ্তানি করাচ্ছে, তানিয়ে শুল্ক বিভাগের বিরোদ্ধে প্ৰশ্ন উত্থাপন হচ্ছে ।সঙ্গে অভিযোগ উত্থাপিত হচ্ছে লেণ্ডপৰ্ট অথরিটি অফ ইণ্ডিয়া এবং বি এছ এফের ১৪৭ নং ব্যাটেলিয়নের দায়িত্বে থাকা কোম্পানীটির বিরুদ্ধেও । আশ্চর্যের বিষয় যে দীর্ঘ বছর ধরে জেলার সাধারণ জনগনের সঙ্গে বাইরের থেকে আসা লোক সুতারকান্দি বাণিজ্য কেন্দ্ৰতে সহজে আসা যাওয়া করতে কোনো ধরণের বাধ্যবাধকতার সন্মূখীন হতে হয়না কিন্তু সাধারণ লোকের ক্ষেত্রে আবার কঠিন আইন রয়েছে।

এদিকে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে বিরূপ প্ৰতিক্ৰিয়ার সৃষ্টি হচ্ছে ।পুলিশের চোখের সামনে দিয়ে কিভাবে শত শত ট্ৰাক কয়লা সরবরাহ হচ্ছে। চুরাইবাড়িতে তন্ন তন্ন করে তল্লাশি চালানোর পরও আজ অবধি একটিও কয়লা ভৰ্তি ট্ৰাক ধরতে না পারাও এক হাস্যকর বিষয়।