বৃহস্পতিবার, ৫ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / ভাটগ্রামেই হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর সভা,অভিযোগ তুলে নিলেন গ্রামবাসীরা

ভাটগ্রামেই হচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর সভা,অভিযোগ তুলে নিলেন গ্রামবাসীরা

তারা বলেন, আমাদের অভিযোগ ছিলো কৃষি প্রধান জমিতে রাস্তা, হেলিপ্যাড ও মঞ্চ এবং ভিআইপিদের বসার কক্ষ তৈরি করা হচ্ছে এতে কৃষি ভূমির ব্যাপক ক্ষতি হবে তবে এখন তারা সামান্য ক্ষতির কথা নাভেবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির

অরুপ রায়, করিমগঞ্জ, মার্চ ১৪,

ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত জেলা করিমগঞ্জের ভাটগ্রামেই আগামী ১৮ মার্চ হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নির্বাচনী জনসভা । নির্বাচনী সভার স্থান নিয়ে যে জটিলতা সৃষ্টি হয়েছিলো তার অবসান ঘটলো। অভিযোগকারী ১৩ জন জমির মালিকের মধ্যে চারজনের লিখিত ভাবে আবার বিজেপির জেলা কমিটি কে অবগত করেন তারা প্রধানমন্ত্রীর জনসভার জন্য জমি দিতে প্রস্তুত । এরআগে নির্বাচন কমিশনকে তাঁরা যে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন তা প্রত্যাহার করে নেন । আজ জেলা বিজেপির সভাপতি সুব্রত ভট্টাচার্যের নির্দেশে জেলা পরিষদের সভাপতি আশীষ নাথ, জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক বিজু বণিক ও রাজ শেখর দত্ত ভাটগ্রামের নাগরিকদের সঙ্গে আলোচনা করেন । দীর্ঘ আলোচনার পর
গ্রামের নাগরিকরা বলেন আমরা ভাগ্যবান আমাদের গ্রামে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আসবেন । প্রধানমন্ত্রীর আগমনে আমরা গর্বিত । তারা বলেন ভূমিধাতাদের অনুমতি নিয়ে কৃষি ভূমির উপর  প্রধানমন্ত্রীর মঞ্চ, হেলিপ্যাড , রাস্তা তৈরির কাজ শুরু হয়েছে ।

তারা বলেন, আমাদের অভিযোগ ছিলো কৃষি প্রধান জমিতে রাস্তা, হেলিপ্যাড ও মঞ্চ এবং ভিআইপিদের বসার কক্ষ তৈরি করা হচ্ছে এতে কৃষি ভূমির ব্যাপক ক্ষতি হবে তবে এখন তারা সামান্য ক্ষতির কথা নাভেবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জনসভাকে সফল করার কথা বলেন ।
এদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জনসভা প্রসঙ্গ নিয়ে জেলা বিজেপির সভাপতি সুব্রত ভট্টাচার্যর কাছে জানতে চাইলে বলেন, অনুমতি নিয়েই সভার আয়োজন শুরু হয়েছিলো, তবে মধ্যে সামান্য সমস্যা দেখা দিয়েছিলো তা আলোচনার মাধ্যমে শেষ হয়েছে । ভট্টাচার্য বলেন, ১৮ মার্চ পরে গোটা বরাক উপত্যকায় গেরুয়া রঙে রঙিন হয়ে যাবে । বিজেপি বরাকের মোট ১৫ টিবাসনের মধ্যে ১২/১৩ টি আসনে জয়লাভ করবে এবং বরাকের জয় যাত্রা সীমান্ত জেলা করিমগঞ্জ থেকেই শুরু হবে।