মঙ্গলবার, ২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / যুবকের পচাগলা লাশ উদ্ধার, চাঞ্চল্য

যুবকের পচাগলা লাশ উদ্ধার, চাঞ্চল্য

চুড়াইবাড়ি থানা এলাকার শনিছড়া গ্রামের কাটোয়াছড়ার ১ নং ওয়ার্ডে তার শ্বশুর বাড়িতে থাকতো। বাড়িতে তার সঙ্গে স্ত্রী ও দুই কন্যা সন্তানও রয়েছে।

অরুপ রায় ,
করিমগঞ্জ, মার্চ ১,

নিখোঁজ হওয়ার এক সপ্তাহ পর পরিত্যক্ত জায়গা থেকে জনজাতি যুবকের পচাগলা লাশ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য বিরাজ করছে দক্ষিণ অসমের করিমগঞ্জ জেলার অসম – ত্রিপুরা সীমান্তবর্তী চুরাইবাড়ি থানার শনিছড়া এলাকায়।প্রাপ্ত বিবরণে প্রকাশ, গত মাসের ২১ তারিখ সকাল বেলা শ্বশুর বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয় কিশোর ত্রিপুরা (২৯) নামে এক যুবক। তার বাড়ি কদমতলা থানাধীন রানীবাড়ী গ্রামের সোনাইছড়ির ৫ নং ওয়ার্ডে। সে চুড়াইবাড়ি থানা এলাকার শনিছড়া গ্রামের কাটোয়াছড়ার ১ নং ওয়ার্ডে তার শ্বশুর বাড়িতে থাকতো। বাড়িতে তার সঙ্গে স্ত্রী ও দুই কন্যা সন্তানও রয়েছে। দীর্ঘ বছর ধরে সে শ্বশুর বাড়িতে বসবাস করতো। কিন্তু ঐদিন সে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হওয়ার পর তার স্ত্রী কিরভুমজয় ত্রিপুরা চুড়াইবাড়ি থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরি দায়ের করেন। কিন্তু চারিদিকে খোঁজাখুঁজির পরও নিখোঁজ কিশোরের হদিস পাওয়া যায়নি। অবশেষে গতকাল বিকেল চারটা নাগাদ স্থানীয় কাটোয়াছড়ার একটি পরিত্যক্ত জায়গা থেকে তাঁর ভাসমান মৃতদেহ দেখতে পায় স্থানীয় লোকজনরা। তারপর সঙ্গে সঙ্গে চুড়াইবাড়ি থানার পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ছুটে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে কদমতলা হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়ে দেয়। অপরদিকে খবর পেয়ে মৃতের স্ত্রীও কদমতলা হাসপাতালে ছুটে যান তখন মৃত কিশোরের পরিবারের লোকজনরা মৃতদেহ শনাক্ত করতে পারে।আর তার পরই বাকবিতণ্ডার শুরু হয়ে যায় তাদের মধ্যে রবিবার দুপুর দুটো নাগাদ ময়নাতদন্তের পর মৃতদেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। এদিকে মৃতের ভাই ও অন্যান্য আত্মীয়-স্বজনরা তার স্ত্রী কিরভুমজয় ত্রিপুরার বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে চুরাইবারি থানায়। তাদের সাফ বক্তব্য কিশোরকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে ফেলে দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে তার স্ত্রী জানায় তার নাকি একটি রোগও ছিল। তাই কখন কিভাবে সে মারা গিয়েছে সেই বিষয়ে স্ত্রী কিছুই জানেন না। তবে চুড়াইবাড়ি থানার পুলিশ মামলা হাতে পেয়ে জোর তদন্ত শুরু করেছে। এখন দেখার বিষয় যে এটা হত্যা না আত্মহত্যা, সঠিক রহস্য উদ্ঘাটন করতে পারে কি না পুলিশ।