শনিবার, ২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / অসমের আবগারি মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ্যের ড্রাইভার নিখোঁজ রহস্য : সি বি আই তদন্ত দাবি

অসমের আবগারি মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ্যের ড্রাইভার নিখোঁজ রহস্য : সি বি আই তদন্ত দাবি

মিন, আবগারি ও বন মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ্যের ড্রাইভার কাজল দত্তের রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সিবিআই তদন্তের জোরালো দাবি জানাল বরাক ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট।

স্বপ্ননীল ভট্টাচার্য

শিলচর , ফেব্রুয়ারি ১৯,
মীন, আবগারি ও বন মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ্যের ড্রাইভার কাজল দত্তের রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে সিবিআই তদন্তের জোরালো দাবি জানাল বরাক ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট।

পরিমল শুক্লবৈদ্যের নিখোঁজ ড্রাইভার কাজল দত্তের পরিবারের অনুরোধে আজ সহমর্মী হয়ে ধলাই সমষ্টির আইরংমারায় তার পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করেন বরাক ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট এর মূখ্য আহ্বায়ক প্রদীপ দত্তরায় ও আহ্বায়ক জহর তারণ।

এদিন আলোচনা ক্রমে কাজল দত্তের মা জানান যে ২০১৬ সালের এক সোমবার নিয়মিত কাজে সকালে পরিমল বাবুর বাড়ির উদ্দেশ্যে বেরিয়ে যায় তার ছেলে। কিন্তু পরবর্তী মঙ্গলবার অব্দি সে ফিরে আসেনি এবং স্থানীয় থানা থেকে জানানো হয় যে তিনি নিখোঁজ হয়েছেন। ক্ষোভ প্রকাশ করে তার মা বলেন মন্ত্রীর বাড়ির কেউ তাকে এই খবরটি দেবার মতো সৌজন্যবোধ পর্যন্ত দেখাননি।

কাজল দত্তের পরিবারের সদস্যরা বলেন যে এরপর তাঁরা কাজলের খোঁজে দুয়ারে দুয়ারে ঘুরে বেরিয়েছেন। মন্ত্রী নিজে ওদের কোনো মামলা না করার নির্দেশ দিয়েছেন এবং বলেছেন তারাই মামলা করবেন এবং অবশ্যই তাকে খুঁজে বের করবেন। কিন্তু এরপর পাঁচ বছর অতিক্রান্ত । এখন অব্দি কাজল দত্তের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

তারা আরো জানান যে রোজকান্দি বাগানের ভিতর ১০০০ বিঘা জুড়ে মন্ত্রী পরিমলের ছেলের একটি ফিসারি রয়েছে। তৎকালীন থানার ওসি এই ব্যাপারে তদন্ত করতে গিয়ে সেই ফিসারির পারে নিখোঁজ কাজলের ফোনটি খুঁজে পেয়েছিলেন। কিন্তু এই অব্দি ই। তারপর কোন রহস্য জনক কালকে সেই পুলিশ আধিকারিককে ট্রান্সফার করে দেওয়া হয়। শুধু তাই নয়,এরপর আরো তিনজন ওসি সংশ্লিষ্ট থানায় পোস্টেড হলেও এই ব্যাপারে তদন্ত শুরু করার পরপরই তাদেরও ট্রান্সফার করা হয়েছে।

স্থানীয় কিছু লোক দাবি করেন যে তাঁরা নিশ্চিত যে কাজলকে মন্ত্রী পরিমলের পরিবারের সদস্যরাই কোন অজ্ঞাত কারণে খুন‌ করেছেন এবং তার মৃতদেহ এই পুকুরেই ফেলে দেওয়া হয়েছিল বলে তাদের সন্দেহ।

সমস্ত ঘটনাবলি শোনার পরিপ্রেক্ষিতে বিডিএফ এর মূখ্য আহ্বায়ক প্রদীপ দত্তরায় বলেন যে রাজ্যের একজন পূর্ণ মন্ত্রী গত পাঁচ বছর ধরে তার নিখোঁজ ড্রাইভারের সন্ধান বের করতে পারছেন না -এর চেয়ে আশ্চর্যের বিষয় আর কি হতে পারে ? তিনি বলেন এটা জলের মতো স্পষ্ট যে কাজলকে খুন করা হয়েছে এবং তাতে মন্ত্রী বা তার পরিবারের লোকেরা জড়িত থাকার সম্ভাবনা কোনক্রমেই উড়িয়ে দেওয়া যায়না। প্রদীপ দত্তরায় বলেন অন্তত যে মায়ের কোল খালি হয়ে গেছে তার প্রতি সহানুভূতিশীল হতে পারতেন মন্ত্রী ,তাদের অন্নসংস্থানের জন্য পরিবারের অন্য কাউকে চাকরি দিতে পারতেন তিনি। কিন্তু এই ব্যাপারে চূড়ান্ত উদাসীনতা দেখিয়েছেন তিনি। তথাকথিত ভদ্রলোক মন্ত্রী এমন অভদ্র ও নির্লজ্জ ভূমিকা পালন করতে পারতেন না যদি কাজল দরিদ্র পরিবারের সন্তান না হতেন।

এদিন বি ডিএফ মূখ্য আহ্বায়ক আসামের মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে দাবি জানান যে অবিলম্বে সিবিআই তদন্তের মাধ্যমে এই ব্যাপারটির নিস্পত্তি করতে হবে। কারণ বরাক ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট চায় যে হতভাগ্য কাজলের মা এবং পরিবারের সদস্যরা যাতে সুবিচার পান । এবং তা না পাওয়া অব্দি তারা এই ব্যাপারে লেগে থাকবেন