রবিবার, ২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / বিনোদন  / গ্রন্থ  / গ্রন্থ আলোচনা

গ্রন্থ আলোচনা

রাষ্ট্রীয় আধ্যাত্মিক পুনর্জাগরণ অভিযান-এর সভাপতি তথা বিশিষ্ট গবেষক দিল্লির রাম শাস্ত্রীর লেখা বই "কৈলাশ মহারহস্যম" বর্তমানে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। বইটি হিন্দি ভাষায় লেখা।

কৈলাস মহারহস্যম
(লেখক – রাম শাস্ত্রী)

শতানন্দ ভট্টাচার্য

রাষ্ট্রীয় আধ্যাত্মিক পুনর্জাগরণ অভিযান-এর সভাপতি তথা বিশিষ্ট গবেষক দিল্লির রাম শাস্ত্রীর লেখা বই “কৈলাস মহারহস্যম” বর্তমানে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। বইটি হিন্দি ভাষায় লেখা।সম্ভবত পবিত্র কৈলাস পর্বতের উপর প্রথম গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সমৃদ্ধ এধরণের একটি বই প্রকাশিত হয়েছে।

কৈলাস মহা পর্বতের চমৎকারী রহস্য বিশ্বে চৌম্বকীয় আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। কৈলাস ও কৈলাস মহাদেব শিবের প্রসঙ্গে বেদ, পুরাণ, তন্ত্র, উপনিষদ, সংহিতা, রামায়ণ, জয় সংহিতা, মহাভারত প্রভৃতিতে দৈব মহত্বের তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে। দেবাদিদেব শিব কৈলাসে যোগ মুদ্রায় বিরাজমান। সমস্ত জগতের দেব, দেবী, যক্ষ কিন্নর, গন্ধর্ব, সিদ্ধ ঋষি, মুনি, যোগীরা কৈলাস এবং পবিত্র মানস সরোবরের পাশে সাধনা ও তপস্যাতে লিপ্ত আছেন।কৈলাস শুধু হিন্দু সম্প্রদায়ের কাছেই নয় বৌদ্ধদের কাছেও এক অন্যতম পবিত্র ধর্মীয় স্থান।কৈলাসের রহস্যগুলি জানতে হলে প্রথম পদক্ষেপ হ’ল মাতৃ শক্তির অধ্যয়ন ও অক্ষর ব্রহ্মের গোপন তত্ব জ্ঞান আহরণ করা।

হিমালয় পর্বতমালার মধ্যে কৈলাসের আকর্ষণ সবচেয়ে বেশি।বিশ্বের তাবড় তাবড় বিজ্ঞানীরা আজো রহস্যের ঘেরাটোপে থাকা দুর্গম পর্বত সম্পর্কে অনেক অজানা তথ্য জানতে পারেননি।শিবলোক কৈলাসের অদৃশ্য অসাধারণ বৈদ্যুতিন চৌম্বকীয় প্রখন্ড প্রবাহ, অস্বাভাবিক পারমাণবিক বিকিরণ, সাড়ে পাঁচ কোটি বছরের প্রাচীনতম শক্ত গ্রানাইট কেমন তা উদ্ঘাটন করতে পারেন নি কেউ। শ্রী ব্রহ্মার নির্মিত মনস সরোবরে, হঠাৎ হঠাৎ কীভাবে শূন্যের নীচে পঞ্চাশ ডিগ্রীতে দশ ফুট বরফ অপ্রত্যাশিতভাবে আকাশে ওড়ে যায়? মানস সরোবরের পবিত্র জল কোথাও ঠাণ্ডা আবার কোথাও গরম কেন ? কেন মানস সরোবরের রাজহাঁস নিরামিষাশী? তা আজো অজানা। কৈলাস অঞ্চল শুধু মাত্র পর্যটনের বিষয় নয় এটি মহাতীর্থ বা তীর্থযাত্রার কথিত ধর্মীয় পর্যটন, ধর্ম, আধ্যাত্মিকতা, দর্শন, সংস্কৃতি, বৈদিক, বৈজ্ঞানিক ক্ষেত্র। বহু বার প্রাকৃতিক ভয়াবহ দুর্যোগ ঘাত -প্রতিঘাত করেছে, তথাপি পবিত্রতম কৈলাস ও মানস সরোবরে দেবাদিদেব শিব আজো অক্ষত অবস্থায় বিরাজমান। কৈলাস ও মানস সরোবরের দিব্য অলখ নিরঞ্জনের কথা যুগ যুগ ধরে মুনি ঋষি সন্ন্যাসীরা প্রচার করে আসছেন।শিবের ডমরু থেকেই বিশ্বের সৃষ্টি।এধরণের সব কথাই এই বইটিতে লিপিবদ্ধ হয়েছে। অনেক পুরোনো মূল্যবান ছবিও বইটিতে সন্নিবিষ্ট হয়েছে।লেখক রাম শাস্ত্রীর বয়স বর্তমানে ৮০ র কাছাকাছি। তবুও গবেষণাধর্মী এই বইটি লিখে সবাইকে কৈলাসের রহস্য জানতে সবাইকে উৎসাহিত করেছেন। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে এই বইয়ের কোনো বিক্রয় মূল্য রাখা হয়নি। বিনামূল্যে বিশিষ্ট মানুষের কাছে বিলি করা হচ্ছে।

বইটি সমর্পন করা হয়েছে শ্রী কৈলাসপতি নীলকণ্ঠ মহাদেবের ব্রহ্মকমলে।