মঙ্গলবার, ২৭শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

NewsFile Institute
Home / Big Picture Stories  / দেশের বর্তমান কৃষক আন্দোলন কিসের বার্তা বহন করছে ?

দেশের বর্তমান কৃষক আন্দোলন কিসের বার্তা বহন করছে ?

মিঠুলাল চৌধুরী দিল্লি সীমান্তে প্রায় তিন মাস ধরে যে কৃষক আন্দোলন চলছে , তা একান্তই আমাদের দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়। ভারতে গনতন্ত্র আছে বলেই আন্দোলনের ও অধিকার রয়েছে। দিল্লি সীমান্তে দীর্ঘদিন ধরে অবরোধ করে রাখা সত্বেও সরকার

মিঠুলাল চৌধুরী

দিল্লি সীমান্তে প্রায় তিন মাস ধরে যে কৃষক আন্দোলন চলছে , তা একান্তই আমাদের দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়। ভারতে গনতন্ত্র আছে বলেই আন্দোলনের ও অধিকার রয়েছে। দিল্লি সীমান্তে দীর্ঘদিন ধরে অবরোধ করে রাখা সত্বেও সরকার জোর করে আন্দোলনজীবিদের তুলে দেওয়ার কোন চেষ্টাই করেনি। প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন প্রতিশ্রুতি ভেঙ্গে ট্রাক্টর মিছিলের নামে দিল্লিতে লাঠি, তলোয়ার নিয়ে তান্ডব চালানোর পাশাপাশি পুলিশকে মারধর, তাদেরকে ট্রাক্টর দিয়ে পিশে মারার চেষ্টা এবং লালকেল্লায় জাতীয় পতাকার অবমাননা করা সত্ত্বেও পুলিশ গুলি চালায় নি। সরকার কিন্তু বারবার আলোচনার মাধ্যমেই বিরোধ মেটাতে চেয়েছে ।
নরেন্দ্র মোদী সংসদে দাঁড়িয়ে কৃষক নেতাদের আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছেন । এমনকি দেড় বছরের জন্য তিনটি কৃষি আইন স্থগিত রাখার প্রস্তাব ও দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তবুও আন্দোলনকে বিপথগামী করে দেশে অস্থিরতা সৃষ্টির চেষ্টা চলছে।
এদিকে ভারতরত্নদের টুইট নিয়ে কংগ্রেস নেতাদের আবদার মতো মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অনিল দেশমুখ তদন্তের নির্দেশ দিয়ে মানুষের বাক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করেছেন । বিরোধীরা সবকিছুতেই রাজনীতির গন্ধ খুঁজে পায় , তা মহারাষ্ট্রে শিবসেনা, কংগ্রেস, এন সি পি জোট সরকারের এই তদন্তের নির্দেশ থেকে স্পষ্ট হল। যখন কৃষক আন্দোলনকে সামনে রেখে বাইরে থেকে নানা অভিসন্ধিমুশক ইন্ধন দেওয়া বার্তা দেওয়া হচ্ছে , তখন দেশের ঐক্যের পক্ষে দাঁড়িয়ে টুইট করেছেন লতা মংগেসকর, শচিন তেন্ডুলকর, বিরাট কোহলি, অক্ষয় কুমারের মতো বিশিষ্টজনেরা । বিদেশি তারকাদের টুইট নিয়ে বিরোধীদের কোন চিন্তা নেই , তাদের যত চিন্তা স্বদেশী তারকাদের টুইট নিয়ে। অন্যদের মতো তারকাদের ও নিশ্চয় মত প্রকাশের স্বাধীনতা আছে। ভারতের ঐক্যকে দুর্বল করতেই কি মহারাষ্ট্র সরকারে��